1. miahmohammadshuzan@gmail.com : Central News :
  2. centralnewsbd24@gmail.com : CNB BD : CNB BD
স্বর্ণসহ পাঁচ রপ্তানি পদক পেল প্রাণ-আরএফএল | Central News BD
মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ০৬:৫২ পূর্বাহ্ন

স্বর্ণসহ পাঁচ রপ্তানি পদক পেল প্রাণ-আরএফএল

ডেস্ক রিপোর্ট
  • আপডেট সময় : শুক্রবার, ৮ এপ্রিল, ২০২২
  • ৭০ জন সংবাদটি পড়েছেন

রপ্তানি বাণিজ্যে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখায় ২০১৭-১৮ অর্থবছরের জন্য সেরা রপ্তানিকারকের পুরস্কার পেয়েছে প্রাণ-আরএফএল গ্রুপের পাঁচ প্রতিষ্ঠান। কৃষি প্রক্রিয়াজাত, প্লাস্টিক ও লাইট ইঞ্জিনিয়ারিং পণ্য রপ্তানিতে ভূমিকা রাখায় এই গ্রুপকে স্বর্ণসহ পাঁচ রপ্তানি পদক দিয়েছে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়।সর্বোচ্চ রপ্তানিকারক হিসেবে এ নিয়ে টানা ১৭ বার সেরা রপ্তানিকারকের পুরস্কার পেল প্রাণ-আরএফএল গ্রুপ।

২০১৭-১৮ অর্থবছরের এগ্রো প্রসেসিং খাতে (তামাকজাত পণ্য ব্যতীত) তিনটি পুরস্কারই পেয়েছে প্রাণ। এ খাতে প্রাণ ডেইরী লিমিটেড স্বর্ণপদক, প্রাণ এগ্রো লিমিটেড রৌপ্য ও হবিগঞ্জ এগ্রো লিমিটেড ব্রোঞ্জপদক অর্জন করেছে।

অপরদিকে প্লাস্টিক পণ্য রপ্তানিতে রৌপ্যপদক পেয়েছে আরএফএল গ্রুপের সহযোগী প্রতিষ্ঠান অলপ্লাস্ট বাংলাদেশ লিমিটেড। পাশাপাশি লাইট ইঞ্জিনিয়ারিং পণ্য রপ্তানিতে রৌপ্যপদক পেয়েছে রংপুর মেটাল ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর রেডিসন হোটেলে পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে ভার্চুয়ালি যুক্ত হন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ।

প্রাণ ডেইরীর পক্ষে প্রাণ গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ইলিয়াছ মৃধা এবং প্রাণ এগ্রোর নির্বাহী পরিচালক নাসের আহমেদ, হবিগঞ্জ এগ্রোর নির্বাহী পরিচালক অনিমেষ সাহা, অলপ্লাস্ট বাংলাদেশের নির্বাহী পরিচালক সাঈদ হোসেন চৌধুরী ও রংপুর মেটাল ইন্ডাস্ট্রিজ এর নির্বাহী পরিচালক সৈয়দ জয়নুল আবেদিন নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের পক্ষে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশির হাত থেকে পুরস্কার গ্রহণ করেন।

প্রাণ গ্রুপ ১৯৯৭ সালে ফ্রান্সে পণ্য রপ্তানির মাধ্যমে বৈদেশিক বাণিজ্যে পা রাখে। বর্তমানে বিশ্বের ১৪৫টি দেশে প্রাণ-আরএফএল’র পণ্য পাওয়া যাচ্ছে। প্রাণ-আরএফএল পণ্যের সবচেয়ে বড় বাজার ভারত ও মধ্যপ্রাচ্য। এছাড়া আফ্রিকা, ইউরোপ, উত্তর ও দক্ষিণ আমেরিকাসহ বিশ্বের প্রায় সব প্রান্তেই প্রাণ-আরএফএল পণ্য পৌঁছে গেছে।

আপনার সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার দিন

এই ক্যাটাগরীর আরও খবর

© ২০২১-২৩ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | সেন্ট্রাল নিউজ বিডি.কম

Theme Designed BY Kh Raad ( Frilix Group )