1. miahmohammadshuzan@gmail.com : Central News :
  2. centralnewsbd24@gmail.com : CNB BD : CNB BD
রংপুরে মাধ্যমিক শিক্ষা জাতীয়করণসহ ১১ দফা দাবিতে মানববন্ধন | Central News BD
রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১১:২১ অপরাহ্ন

রংপুরে মাধ্যমিক শিক্ষা জাতীয়করণসহ ১১ দফা দাবিতে মানববন্ধন

নিজস্ব প্রতিবেদক, রংপুর
  • আপডেট সময় : বুধবার, ২৩ মার্চ, ২০২২
  • ৮০ জন সংবাদটি পড়েছেন
বুধবার জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সামনে মনববন্ধন অনুষ্টিত হয়েছে।

সরকারি-বৈসরকারি বৈষম্য দুরিকরণের লক্ষ্যে মাধ্যমিক শিক্ষা জাতীয়করণসহ ১১ দফা দাবীতে বুধবার দুপুর ১২টায় রংপুরে মানববন্ধন ও জেলা প্রশাসক আসিব আহসানের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করেছেন বাংলাদেশ শিক্ষক সিমিতি (বিটিএ) রংপুর জেলা শাখা।

মানববন্ধনে বাংলাদেশ শিক্ষক সিমিতি (বিটিএ) বংপর জেলা শাখার সভাপতি অধ্যক্ষ আতিয়ার রহমান প্রামাণিকের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ মােহাম্মদ আলীর সঞ্চলনায় বক্তব্য রাখেন, প্রবীন শিক্ষক নেতা ও কেন্দ্রীয় উপদেষ্টা মাসুম হাসান, মহানগর সভাপতি আয়শা সিদ্দিকা প্রমুখ।

আরও পড়ুন:জোড়া লাগানো যমজ কন্যা শিশুর জন্ম

এসময় আরও বক্তব্য রাখেন সাধারণ সম্পাদক শাহ মোঃ লুৎফর রহমান, জেলা সহ-সভাপতি আমজাল হােসেন, অধ্যক্ষ শফিকুল ইসলাম, অঞ্চলের সভাপতি মুহা, আবুল মুযন আযাল, সাধারণ সম্পানক মোফাজ্জল হোসেন, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক রফিকুজ্জামান, দপ্তর সম্পাদক আশরাফুল আলম চৌধুরী, সদর উপজেলা সভাপতি বাবু মুতগয় বর্মন ও সাধারণ সম্পাদক আখিনুরসহ প্রমুখ।

এসময় বক্তারা বলেন, শিক্ষা ক্ষেত্রে সরকারি ও বেসরকারি অনেক বৈষম্য রয়েছে। বেসরকারি শিক্ষক-কর্মচারীগণ বছরে দু’বার ২৫% উৎসব ভাতা, মাসিক এক টাকা বাড়ি ভাড়া ও পাঁচশত টাকা চিকিৎসা ভাতা পেয়ে থাকি। অবসরে যাবার পর অবসর সুবিধা ও কল্যাণ ট্রাস্টের টাকা পেতে বছরের পর বছর অপেক্ষা করতে হয়।

ফলে অনেক শিক্ষক/কর্মচারী টাকা পাওয়ার পূর্বেই অর্থাভাবে বিনা চিকিৎসায় মৃত্যুবরণ করেন যা অত্যন্ত দুখজনক। তাছাড়া কয়েক বছর যাবৎ কোন বাড়তি সুবিধা ব্যতিরেকেই অবসর সুবিধা ও কল্যাণ ট্রাস্ট খাতে শিক্ষক-কর্মচারীদের বেতন থেকে অতিরিক্ত ৪% কর্তন করা হচ্ছে।

নানা কারণে স্বীকৃতিপ্রাপ্ত অনেক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এখনও এমপিওভুক্ত হতে পারেনি। বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধান শিক্ষক ও সহকারি প্রধান শিক্ষকগণের বেতন স্কেল সরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের চেয়ে এক ধাপ নিচে প্রদান করা হয়।

এমপিওভুক্ত বেসরকারি শিক্ষক-কর্মচারীদের বদলীর কোন সুযোগ নেই। বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের চাকরির বয়স ৬৫ করা হলেও স্কুল- কলেজের শিক্ষক কর্মচারীদের চাকরির বয়স সীমা এখনও ৬০ বছরই রয়েছে। ম্যানেজিং কমিটি/গভর্নিং বডির সদস্যদের নুন্যতম শিক্ষাগত যোগ্যতা নির্ধরিত না থাকায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান পরিচালনায় নানাবিধ সমস্যা তৈরি হচ্ছে।

মাধ্যমিক শিক্ষা জাতীয়করণসহ ১১ দফা দাবী গুলো হলো: মুজিববর্ষেই মাধ্যমিক শিক্ষা জাতীয়করণ করা। আসন্ন ঈদের পূর্বেই সরকারি শিক্ষক-কর্মচারীদের ন্যায় এমপিওভুক্ত শিক্ষক-কর্মচারীদের পূর্ণাঙ্ উৎসব ভাতা, বাড়ী ভাড়া ও চিকিৎসা ভাতা প্রদান।

পূর্ণাঙ্গ পেনশন প্রথা চালুকরণ এবং পেনশন প্রথা চালু না হওয়া পর্যন্ত অবসর গ্রহণের ৬ মাদের মধ্যে অবসর সুবিধা ও কল্যাণ ট্রাস্টের পাওনা প্রদান ও শিক্ষক-কর্মচারীদের বেতন থেকে অতিরিক্ত ৪% কর্তন বন্ধ করা।

স্বাকৃতিপ্রাপ্ত সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভূক্তিকরণ। সরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ন্যায় বেসরকারি শিখপ্রতিষ্ঠানের প্রধান শিক্ষক ও সহকারি প্রধান শিক্ষকগণের বেতন স্কেল যখাত্রমে ওঠ ও ৭ম গ্রেডে উন্নীতকরণ। এমপিওভুক্ত শিক্ষক-কর্মচারীদের বদলী চালু করা।

বেসরকারি শিক্ষক-কর্মচারীদের চাকরির বয়স সীমা ৬৫ বছরে উন্নীতকরণ। সবতিত সার্তিস কমিশনের ন্যায় শিক্ষক নিয়োগ কমিশন গঠন এবং শিক্ষাপ্রশাসনের বিভিন্ন শুরে আনুপাতিক হারে এমপিওভুক্ত শিক্ষকদের পদায়ন।

করোনায় ক্ষতিগ্রন্ত নন-এমপিও শিক্ষক-কর্মচারীদের আর্থিক প্রণোদনা এবং শিক্ষার্থীদের বিনামূল্যে শিক্ষা সহায়ক ডিভাইস প্রদান।

ম্যানেজিং কমিটি/গভর্নিং বডির সদস্যদের নুন্যতম শিক্ষাগত যোগ্যতা নির্ধারণ ও শিক্ষা ক্ষেত্রে বিরাজমান সরকারি ও বেসরকারি বৈষম্য দৃরিকরণের লক্ষ্যে শিক্ষানীতি-২০১০ দ্রত বাস্তবায়ন করতে হবে।

এর পবেও যদি দাবি মানা না হয় তবে সারাদেশে হতাশ ও বিক্ষুদ্ধ বেসরকারি শিক্ষক কর্মচারীগণ কঠোর আন্দোলনে যেতে বাধ্য হবে বলে হুশিয়ারি দেন।

আপনার সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার দিন

এই ক্যাটাগরীর আরও খবর

© ২০২১-২৩ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | সেন্ট্রাল নিউজ বিডি.কম

Theme Designed BY Kh Raad ( Frilix Group )