1. miahmohammadshuzan@gmail.com : Central News :
  2. centralnewsbd24@gmail.com : CNB BD : CNB BD
রংপুরজুড়ে বিএসটিআইর অভিযান ও জরিমানা | Central News BD
রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১১:৫১ অপরাহ্ন

রংপুরজুড়ে বিএসটিআইর অভিযান ও জরিমানা

নিজস্ব প্রতিবেদক, রংপুর
  • আপডেট সময় : মঙ্গলবার, ১২ এপ্রিল, ২০২২
  • ৪২ জন সংবাদটি পড়েছেন

রংপুর বিভাগের তিন জেলার অভিযান চালিয়ে বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ডস এন্ড টেস্টিং ইনস্টিটিউশন-বিএসটিআই। অভিযানে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে তিনটি প্রতিষ্ঠানকে ৩৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। বিভাগের কুড়িগ্রাম, দিনাজপুর ও নীলফামারী জেলায় এই অভিযান পরিচালনা করেছে সরকারি এ প্রতিষ্ঠানটি।

মঙ্গলবার (১২ এপ্রিল) বিকেলে গণমাধ্যমে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানান রংপুর বিভাগীয় বিএসটিআই অফিসের উপপরিচালক (পদার্থ) প্রকৌশলী আব্দুর রশিদ।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, খাদ্যদ্রব্য ও পণ্যসামগ্রীতে ভেজাল রোধ এবং সঠিক ওজন ও পরিমাপ নিশ্চিতকরণের লক্ষ্যে বিএসটিআই’র নিয়মিত কার্যক্রমের অংশ হিসেবে মঙ্গলবার সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত কুড়িগ্রাম, দিনাজপুর ও নীলফামারী জেলার বিভিন্ন উপজেলায় স্থানীয় প্রশাসনের সহায়তায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়। এসময় বিভিন্ন অনিয়মের কারণে বেশ কিছু প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা করা হয়।

অভিযানে কুড়িগ্রাম জেলা সদরের মেসার্স জান্নাত ফুড এন্ড বেকারী উৎপাদিত বিভিন্ন খাদ্যপণ্যের মান যাচাই ব্যতিত লাচ্ছা সেমাই উৎপাদন ও বিক্রয় বিতরণ করার অপরাধে ২৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। সেখানে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন কুড়িগ্রাম জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নিশাত তামান্না। এসময় তার সঙ্গে বিএসটিআই রংপুর বিভাগীয় প্রসিকিউটিং কর্মকর্তা হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন ফিল্ড অফিসার (সিএম) দেলোয়ার হোসেন।

আরও পড়ুন:

কুড়িগ্রামে বাজার পরিদর্শন করলেন পুলিশ সুপার

এছাড়াও দিনাজপুর সদরে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে মেসার্স এম সরকার ফিলিং স্টেশন এর পেট্রোল ইউনিট প্রতি ১০ লিটারে ১২০ মি.লি. ও ডিজেল ইউনিট প্রতি ১০ লিটারে ৫০ মি.লি. কম দেয়ার অপরাধে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। একই জেলা সদরে রোলেক্স বেকারীতে অস্বাস্থ্যকর ও নোংরা পরিবেশে লাচ্ছা সেমাই উৎপাদন করায় ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এই অভিযানে ভ্রাম্যমান আদালতটি পরিচালনা করেন দিনাজপুর জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মাহমুদুল হাসান। সেখানে  প্রসিকিউটিং কর্মকর্তা হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন বিএসটিআই ফিল্ড অফিসার মেসবাহ-উল-হাসান ও পরিদর্শক মিঠুন কবিরাজ।

অপরদিকে, নীলফামারী জেলা সদরে বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট জাহিদ হাসান এর নেতৃত্বে র‌্যাব-১৩ ও পুলিশ প্রশাসনের সহায়তায় একটি ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করা হয়। অভিযান পরিচালনাকালে মেসার্স মুক্তা ফিলিং স্টেশন, মেসার্স দেওয়ান ফিলিং স্টেশন ও মেসার্স রশিদা ফিলিং স্টেশনের পেট্রোল পাম্পে জ্বালানী তেল সরবরাহের সময় পরিমাপে সঠিক পাওয়া যায়।

এছাড়াও সদরের ৬টি মুদিখানা দোকান, ২টি কনফেকশনারী ও ২টি খাবার হোটেলে ব্যবহৃত ওজন যন্ত্রসমূহ পরিদর্শনকালে পরিমাপে সঠিক পাওয়া যায়। এই অভিযানে প্রসিকিউটিং কর্মকর্তা ছিলেন বিএসটিআই সহকারী পরিচালক (মেট্রোলজি) অনিমেষ মজুমদার।

জনস্বার্থে প্রশাসন ও পুলিশের সহায়তায় বিএসটিআই’র এধরণের অভিযান আগামীতেও অব্যাহত থাকবে বলে জানান বিভাগীয় বিএসটিআই অফিসের উপপরিচালক (পদার্থ) প্রকৌশলী মো. আব্দুর রশিদ।  ##

আপনার সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার দিন

এই ক্যাটাগরীর আরও খবর

© ২০২১-২৩ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | সেন্ট্রাল নিউজ বিডি.কম

Theme Designed BY Kh Raad ( Frilix Group )